ডোমেইন হোস্টিং কি? সেরা ১০টি ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী

ডোমেইন হোস্টিং

ডোমেইন হোস্টিং কি এবং সেরা ১০টি ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী

প্রযুক্তি সম্পর্কে যারা ভালো ধারণা রাখেন তাদের কাছে ডোমেইন হোস্টিং বেশ পরিচিত শব্দ। আপনি যদি নতুন ওয়েবসাইট করতে চান, তাহলে আপনার ডোমেইন হোস্টিং সম্পর্কে ধারণা নেওয়া প্রয়োজন। কোন হোস্টিং কোম্পানীতে ওয়েবসাইট রাখার খরচ কেমন, কারা কেমন সার্ভিস দিচ্ছে এবং সেই সাথে নিরাপত্তা ও ওয়েবসাইট স্পীড এর দিক থেকে কোন হোস্টিং কোম্পানী ভালো সেসবও জানা দরকার।

তাই নতুন ওয়েবসাইট মালিক এবং ব্লগিং এ আগ্রহী লোকজন জানতে চান ডোমেইন হোস্টিং কিভাবে কিনবো, বিশ্বের সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী কোনগুলো, বাংলাদেশের সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোনগুলো, এবং তাদের সার্ভিস ও পেমেন্ট পদ্ধতি সম্পর্কেও জানতে চান‌। তাই আমাদের আজকের আলোচনার বিষয়বস্তু ডোমেইন হোস্টিং ও সেরা দেশী ও বিদেশী কোম্পানী নিয়ে।

ডোমেইন কী?

ওয়েবসাইট করতে হলে ওয়েবসাইটের একটি নাম দিতে হয়। ওয়েবসাইটের সেই নামই ডোমেইন। যে নাম সার্চ করে ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে আসতে পারবে সেটাই হল ডোমেইন।

ডোমেইন বলতে আমরা অনেকেই শুধুমাত্র .com এক্সটেনশন বুঝি। আসলে তা নয়, বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন ধরনের ডোমেইন ব্যবহার করা হয়। ব্যবসা বা সাধারন ব্যবহারের জন্য সবাই .com ই ব্যবহার করে।

তবে সাইটের ধরণ এর উপর বিভিন্ন রকম হয়। যেমন: অরগানাইজেশনের জন্য .org, ইনফরমেশন সাইটের জন্য .info ইত্যাদি।

হোস্টিং কী?

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করার পর আপনার ওয়েবসাইটকে এমন একটা কম্পিউটারে রাখতে হবে যেটি দিনরাত ২৪ ঘন্টা এবং বছরে ৩৬৫ দিন চালু থাকবে। সবসময় চালু থাকে এমন কম্পিউটারে আপনার ওয়েবসাইট রাখার সুবিধা দিতেই হোস্টিং কোম্পানীগুলো রয়েছে। ভিন্ন ভিন্ন হোস্টিং কোম্পানি বিভিন্ন মূল্যে হোস্টিং সেবা প্রোভাইড করে থাকে।

বাংলাদেশ সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হোস্টিং কোম্পানিগুলো বিভিন্ন ধরনের হোস্টিং সার্ভিস বিক্রি করে থাকে। যেমন: শেয়ারড হোস্টিং, ভিপিএস, ডেডিকেটেড সার্ভার, ক্লাউড হোস্টিং ইত্যাদি।

কিভাবে ডোমেইন হোস্টিং কিনবেন?

প্রথমে জানতে হবে ডোমেইন হোস্টিং এর দাম সম্পর্কে। একেক কোম্পানি একেক রকম মূল্যে ডোমেইন হোস্টিং সার্ভিস দিয়ে থাকে। তো এটার তেমন কোনো ফিক্সড প্রাইস নেই‌। তবে .com ডোমেইনের প্রাইজ গড়ে ১০-১২ ডলার হয়ে থাকে প্রতি এক বছরের জন্য। অন্যদিকে হোস্টিং এর প্রাইস আসে প্রতি মাসে ২-১০ ডলার। তবে ডেডিকেটেড হোস্টিংগুলোর প্রাইস বেশি হয়।

আপনার যদি ক্রেডিট কার্ড থাকে তাহলে আপনি বিশ্বের যেকোনো ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি থেকে আপনার পছন্দ মত সার্ভিসটি নিয়ে নিতে পারেন। আর যদি ক্রেডিট কার্ড না থাকে তাহলে বাংলাদেশে অনেক কোম্পানি আছে তাদের যেকোন কোম্পানি থেকে বিকাশ, নগদ অথবা রকেট পেমেন্ট করে কিনতে পারেন।

বাংলাদেশের জনপ্রিয় ৫টি ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি

১. Hosting Bangladesh:

Domain Hosting

ব্যতিক্রমী ওয়েব হোস্টিং সংস্থা হিসেবে হোস্টিং বাংলাদেশ অন্যতম। তারা প্রতি বছর মাত্র ৯৫০ টাকায় তাদের স্টার্টার প্লান অফার করে। এই প্যাকেজে ১০০ জিবি ব্যান্ডউইথ সহ ৫ গিগাবাইট স্পেস এর একটি প্রিমিয়াম হোস্টিং সার্ভিস পাবেন। যা নতুন একটি সাইটের জন্য যথেষ্ট।  প্রয়োজনে পরবর্তীতে প্যাকেজ বৃদ্ধি করার সুযোগ তো থাকছেই।

পেমেন্ট মেথড:

  • বিকাশ
  • রকেট
  • নগদ
  • ব্যাংক একাউন্ট/কার্ড।

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: Hosting Bangladesh

২. XeonBD:

কম খরচে একটি ওয়ার্ডপ্রেস সাইট তৈরি করতে XeonBD উপযুক্ত। আপনি প্রতি মাসে ১২৯৯ টাকা থেকে আপনার পরিকল্পনাটি শুরু করতে পারেন। প্রথম বছরের জন্য একটি ফ্রি ডোমেইনও পাবেন, যার জন্য অন্যান্য প্রোভাইডার অতিরিক্ত চার্জ করে থাকে। এই প্যাকেজে ৩০ গিগাবাইট স্পেস এবং আনলিমিটেড অ্যাড-অন ডোমেন অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

বেশিরভাগ মানুষ জেয়ন-বিডি বাংলাদেশের সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী হিসেবে স্বীকার করেন। বাংলাদেশের বিখ্যাত কিছু প্রতিষ্ঠান যেমন: ঢাকা মেট্রোপলিটন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, এশিয়া ব্যাংক এর সাইট হোস্টিং করছে জেয়নবিডিতে।
পেমেন্ট মেথড:

  • বিকাশ
  • রকেট
  • নগদ
  • ব্যাংক একাউন্ট/কার্ড।

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: XeoBD

৩. ExonHost:

এক্সনহোস্ট বাংলাদেশের আরেকটি সুপরিচিত ওয়েবহোস্টিং কোম্পানী। এক্সনহোস্ট ওয়েব হোস্টিং ভাল গতির জন্য litespeed ওয়েব সার্ভার, PHP 7.4 ব্যবহার করছে। সার্ভারকে নিরাপদ, স্থিতিশীল করার জন্য Cloudlinux ব্যবহার করা হয়। সেইসাথে উচ্চ কার্যক্ষমতার জন্য এন্টারপ্রাইজ ভার্সন এসএসডি স্টোরেজ ব্যবহার করে থাকে। এসএসডি নিয়মিত ড্রাইভের তুলনায় ইনপুট/আউটপুট অপারেশনে 1000 গুণ স্পীড প্রদান করে। এখানে আপনি ব্যাসিক প্যাকেজটি পাবেন প্রতি মাসে ২৪৫ টাকার বিনিময়ে। যেখানে থাকছে ৫জিবি স্টোরেজ, ২৫০জিবি ব্যান্ডউইথ এবং ২টি ওয়েবসাইট যোগ করার সুযোগ।

পেমেন্ট মেথড:

  • বিকাশ
  • রকেট
  • নগদ
  • ব্যাংক একাউন্ট/কার্ড।

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: ExonHost

৪. WebHostBD:

ওয়েব হোস্ট বিডি বাংলাদেশের শীর্ষ একটি ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি। 2012 সাল থেকে বাংলাদেশে নিরাপদ, দ্রুত এবং নির্ভরযোগ্য ওয়েব হোস্টিং প্রদান করে আসছে। এরা আমেরিকায় অবস্থানরত ডেটা-সেন্টার ব্যবহার করে থাকে। এখান থেকে শেয়ার্ড হোস্টিং, ভিপিএস, ডেডিকেটেড সার্ভার পেতে পারেন। বর্তমানে ওয়েবহোস্টবিডিতে সার্ভারে 3000+ বাংলাদেশী ওয়েবসাইট হোস্ট করা আছে। এখানে সকল শেয়ারড হোস্টিং প্ল্যানের জন্য 30 দিনের মানি-ব্যাক গ্যারান্টি দেওয়া হয়।

ব্যাসিক প্লানে আছে ২জিবি এসএসডি স্টোরেজ, ১০০ জিবি ব্যান্ডউইথ এবং আনলিমিটেড সাবডোমেইন, যার বাৎসরিক মূল্য ১৫০০ টাকা।

পেমেন্ট মেথড:

  • বিকাশ
  • রকেট
  • নগদ
  • ব্যাংক একাউন্ট/কার্ড।

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: WebHostBD

৫. DianaHost:

ডায়ানাহোস্ট দ্রুততম হোস্টিং পরিষেবা প্রদানকারী হিসাবে সুপরিচিত। ডায়ানাহোস্ট বেসিস, ইসিএবি এবং বিডিএইচপিএর নিবন্ধিত সদস্য। এটি বাংলাদেশের একটি স্বনামধন্য আইটি কোম্পানি। শেয়ার্ড হোস্টিং, ই-কমার্স হোস্টিং সহ ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, ভিপিএস সার্ভার, ডেডিকেটেড সার্ভার, ডিজিটাল মার্কেটিং, এসএমএস গেটওয়ে, ডোমেন রেজিস্ট্রেশন, সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, এবং আরও অনেক পরিষেবা প্রদান করে। ডায়ানাহোস্ট আমার কাছে কোনো বিতর্ক ছাড়াই সাপোর্ট সিস্টেমে সেরা দেশী হোস্টিং কোম্পানী। আমার এই ওয়েবসাইটটির হোস্টিং ডায়নাহোস্ট থেকে নেয়া। আমি ব্যাক্তিগত ভাবে তাদের হোস্টিং সার্ভিস পছন্দ করি।

জেয়নবিডির বাংলাদেশী ডাটা সেন্টারের পার্টনার ডায়ানাহোস্ট। তাই তাদের কাছে বাংলাদেশী ওয়েবসার্ভার পাবেন।

ডায়ানাহোস্ট এর স্টার্টার প্লানটির বাৎসরিক মূল্য ৯৯৯ টাকা, তবে আপনি চাইলে মাসিকভিত্তিক পেমেন্টও করতে পারবেন। প্যাকেজটিতে রয়েছে ৫০০ এমবি এসএসডি স্টোরেজ এবং ৫০ জিবি ব্যান্ডউইথ।

পেমেন্ট মেথড:

  • বিকাশ
  • রকেট
  • নগদ
  • ব্যাংক একাউন্ট/কার্ড।

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: DianaHost

এছাড়াও Ebnhost, Hostever, Eyhost, Limda Host, IT Nut Hosting, Putul Host থেকেও হোস্টিং ডোমেইন কিনতে পারবেন।

বিদেশী সেরা ৫টি ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী

১. HostGator:

কম মূল্য ও অধিক সুবিধার কারণে নতুনদের কাছে হোস্টগাটর সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী।

আনলিমিটেড স্টোরেজ, আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ, ফ্রি ডোমেইন, ফ্রি এস.এস.এল এবং মাইএসকিউএল পরিবর্তনের সুবিধাসহ অন্যান্য হ্যাকিং প্রতিরোধক ফায়ারওয়াল, সার্বক্ষণিক ইত্যাদি সার্ভিস তারা প্রদান করে থাকে। সাইটটি সার্বক্ষনিক কাস্টমার সাপোর্ট(টিকিট ও লাইভ চ্যাট এর মাধ্যমে) দিচ্ছে।

হোস্টগাটরের Hatchling Plan:

  • সিঙ্গেল ওয়েবসাইট
  • অন-ক্লিক ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল
  • ফ্রি ওার্ডপ্রেস/সি-প্যানেল ট্রান্সফার
  • আনলিমিটেড স্টোরেজ
  • আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ
  • ফ্রি ডোমেইন
  • ৯৯.৯৯% আপটাইম
  • ফ্রি এস.এস.এল

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: HostGator

২. Hostinger:

আরেকটি বহুল পরিচিত হোস্টিং কোম্পানি হলো Hostinger. সারাবিশ্বে Hostinger এর ৭ টি ডাটা সেন্টার রয়েছে। হোস্টগাটরের মতো এরাও আনলিমিটেড স্টোরেজ, আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ, ফ্রি এস.এস.এল সুবিধা দিয়ে থাকে।

হোস্টিংগার এর ব্যাসিক সিঙ্গেল শেয়ার্ড হোস্টিং এর মাসিক মূল্য ১.৩৯  ডলার।

  • ১টি ওয়েবসাইট
  • ৩০ জিবি এসএসডি স্টোরেজ
  • ১০০০০ ভিজিট (মাসিক লিমিড)
  • ১টি ফ্রি ইমেল অ্যাকাউন্ট
  • বিনামূল্যে SSL
  • ৯৯.৯৯% আপটাইম

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: Hostinger

৩. BlueHost:

ব্লুহোস্ট ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত আইটি কোম্পানি। তবে তাদের সার্ভিস কোয়ালিটি এবং উন্নত ডাটা সেন্টারের কারণে অল্প সময়ের মধ্যেই প্রথম সারির ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে, যা ওয়ার্ডপ্রেস কর্তৃক ফিচার করা হয়েছে।

বেশ কিছু ভিন্নধর্মী ফিচারেএর কারণেও ব্লুহোস্ট অনেক জনপিয়। প্রচুর এড-অন টুলস, ফ্রি ওয়েবসাইট বিল্ডার, ফ্রি বিজনেস ইমেইল, ৯৯.৯৯% আপটাইম, কম সময়ে ওয়েবসাইট লোডিং, ফ্রি এস. এস. এল. ইত্যাদি সেবা দিয়ে থাকে কোম্পানিটি।

ব্লুহোস্ট শেয়ার্ড হোস্টিং স্টার্টার প্লানটির মাসিক মূল্য ২.৯৫ ডলার। তবে এক বছরের সম্পূর্ণ মূল্য একসাথে পরিশোধ করতে হয়।

  • ১ম বছরের জন্য ফ্রি ডোমেইন
  • ১ ওয়েবসাইট
  • 50 GB SSD স্টোরেজ
  • ফ্রি SSL
  • 1-ক্লিক ওয়ার্ডপ্রেস ইনস্টল
  • 24/7 সাপোর্ট

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: BlueHost

৪. SiteGround:

অন্যান্য জনপ্রিয় বিদেশী ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানিগুলোর মতো সাইটগ্রাউন্ডও বিশ্বস্ত একটি কোম্পানি। আনলিমিটেড ব্যান্ডউইথ,99.998% আপটাইম, ফাস্ট ওয়েবসাইট লোডিং, ফ্রি এস.এস.এল, ফ্রি সাইট ট্রান্সফার, আনলিমিটেড ডাটা ট্রান্সফার, ফ্রি ওয়েবসাইট ব্যাক আপ, সহজবোধ্য সি-প্যানেল ইত্যাদি সার্ভিসের কারণে ওয়েবসাইট মালিকদের মনে নিজের জায়গা তৈরি করে নিয়েছে।

কোম্পানীটি নরমাল সাইট, ওয়ার্ডপ্রেস এবং ইকমার্স সাইটের জন্য আলাদা আলাদা প্যাকেজ সুবিধাও দেয়।

স্টার্টআপ প্লানটির মাসিক মূল্য ৩.৯৫ ডলার। যেখান আপনি পাবেন-

  • 1টি ওয়েবসাইট হোস্ট করার সুযোগ
  • 10 জিবি ওয়েব স্পেস
  • 10,000 ভিজিটর ভিজিট করানোর সুবিধা (মাসিক লিমিট)
  • ফ্রি SSL
  • দৈনিক ব্যাকআপ
  • ফ্রি CDN
  • ফ্রি ইমেইল

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: SiteGround

৫. Namecheap:

অন্যান্য  কোম্পানির চেয়ে এটি বেশ আলাদা। আমাদের মধ্যে যারা নতুন ব্লগার বা সাইট মালিক তারা নিশ্চয়ই পেমেন্ট এর অসুবিধা সম্পর্কে জানেন। অনেক কোম্পানী কম দামে ভালো সার্ভিস দিলেও দেখা যায় পেপালের কারণে তারা নিতে পারছেন না। তাদের জন্য সমাধান হতে পারে নেমচীপ। এরা মূলত ভার্চুয়াল কার্ডও সাপোর্ট করে এবং অন্যদের চেয়ে পেমেন্ট মেথডও বেশি। এদের সাপোর্ট খুব ভালো এটা হয়তো সবাই জানে। এদের সাথে কন্টাক্ট করার সঙ্গেই প্রায় সমাধান পাওয়া যায়। আপনারা এই ওয়েবসাইট ভিজিট করতেছে এটা কিন্তু নেমচীপ থেকে কেনা। আমি ব্যাক্তিগত ভাবে নেমচীপ পছন্দ করি। কারণ শুধু এদের কাস্টমার সার্ভিস।

তাই, আপনার সাইটের সার্বিক দিক বিবেচনা করে এখান থেকে ডোমেইন হোস্টিং কিনতে পারেন। এখানে একেক সময় একেক রকম অফার থাকে। মাঝে মাঝে তাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করলে হয়তো ভালো কোন অফার পাবেন।

Stellar প্যাকেজ

  • মাসিক $1.88
  • 3 Websites
  • 20 GB SSD
  • Free CDN
  • 24/7/365 সাপোর্ট
  • বিনামূল্যে মাইগ্রেশন
  • মানি ব্যাক গ্যারান্টি।

ওয়েবসাইট লিঙ্ক: Namecheap

আশা করি, আমাদের আজকের আলোচনা থেকে আপনি ডোমেইন হোস্টিং সম্পর্কে ধারণা পাওয়ার পাশাপাশি দেশের সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী এবং আন্তর্জাতিক সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানী সম্পর্কে বিস্তাতি ধারণা পেয়েছেন, যা আপনার হোস্ট প্রোভাইডার পছন্দ করতে নিশ্চিতভাবেই সহায়ক হবে। এরপরও যদি কোন প্রশ্ন থাকে বা পরামর্শ থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। যদি পোস্টটি পড়ে বিন্দুমাত্র উপকার হয়  তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here